এরদোগানকে উৎখাতে ৩০০ কোটি ডলার দিয়েছিল আরব আমিরাত!

গত ২০১৬ সালের জুলাই মাসে তুরস্কে সামরিক অ’ভ্যুত্থা’ন ঘ’টোনোর জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাত ৩০০ কোটি ডলার অ’র্থ ব্যয় করেছিল। তুরস্কের দৈনিক ‘ইয়েনি সাফাক’ পত্রিকায় কলামিস্ট মেহমেত আসেত ২০১৭ সালের ১২ জুন তার নিজের কলামে এ তথ্য প্রকাশ করেছিলেন।

তিনি বলেছেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসওগ্লু সম্প্রতি বলেছেন যে, “২০১৬ সালের জুলাই মাসে একটি মুসলিম দেশ কোটি কোটি ডলার খরচ করেছে তুরস্কের সরকার উৎখাতের জন্য। এ কথা দিয়ে তিনি আসলে সংযুক্ত আরব আমিরাতের কথা বলেছেন। পরে তুরস্কের গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে আসেত তার দাবিকে সম্প’র্কে আরো বিস্তৃত বলেছেন, তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে, অ’ভ্যুত্থান প্রচেষ্টার পেছনে ছিল সংযুক্ত আরব আমিরাত। দৈনিক সাবাহ পত্রিকাকে তিনি বলেন, “মন্ত্রী কোনো দেশের নাম বলেন নি তবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে, দেশটি ছিল সংযুক্ত আরব আমিরাত।”

আরো কয়েকটি সূত্র বলেছে, ব্যর্থ সেনা অ’ভ্যুত্থা’ন সংঘ’টিত হওয়ার কয়েক সপ্তাহ আগে আবুধাবি সরকারের সঙ্গে ঘনি’ষ্ঠ এক ‘মিডিয়া ম্যাগনেট’ ওই বিপুল পরিমাণ অর্থ তুর’স্কে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন। সূত্রগুলো বলেছে, ফতেহউল্লাহ গুলেনের অনুসারিদের কাছে এ অর্থ পাঠানো হয়।

ওই ব্যর্থ সেনা অ’ভ্যুত্থা’নের পর তুর্কি সরকার সরাসরি কোনো দেশকে দায়ী করে নি তবে চাভুসওগ্লু এমন সময় আমিরাতের জড়িত থাকার ইঙ্গিত দিয়েছেন যখন পারস্য উপসাগরীয় দেশগুলোর মধ্যে মা’রাত্ম’ক কূটনৈতিক সংক’ট চলছে। চলমান ঘটনায় তুর’স্ক সরাসরি কাতারের পক্ষ নিয়েছে। সূত্র: পার্স টুডে।

About admin

Check Also

লক্ষ টাকার বিনিময়ে একজন করে স্বামী চাইছেন নিঃসঙ্গ সৌদি নারীরা, কিভাবে আবেদন করবেন?

আমরা আমাদের জীবনের নিঃসঙ্গতা কাটাতে বা জীবনে সমস্ত সুখ দুখ অন্য কারো সাথে ভাগ করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *